কাতার নিউজকুয়েত নিউজপ্রবাসী নিউজপ্রবাসীদের চাকরির খবরমধ্যপ্রাচ্যসৌদি আরব নিউজ

তুরস্কের সাথে ব্যবসা বাণিজ্য বন্ধ করতে যাচ্ছে সৌদি আরব! বিস্তারিত দেখুন

তুরস্কের সাথে ব্যবসা বাণিজ্য বন্ধ করতে যাচ্ছে সৌদি আরব।

এক বিজ্ঞপ্তির মাধ্যমে জানানো হয়েছে যে সৌদি আরবের চেম্বার অব কমার্সের কাউন্সিলর এর প্রধান থাকা আজলান আল আজলান গতকাল 15 ই অক্টোবর বুধবার সকালে এক সংবাদ সম্মেলনে বলেছেন যে যেসকল সৌদি আরবের কোম্পানি গুলো তুরস্কের সাথে ব্যবসা-বাণিজ্য করতেছেন তাদেরকে তুর্কিশ সাথে ব্যবসা বাণিজ্য করা থেকে বিরত থাকার জন্য এবং সে সময় তিনি সংবাদ সম্মেলনে এই নির্দেশ সটিকে একটি নামে প্রাধান্য দেওয়া হয়েছে এবং সেটি হল “”তুর্কিশ সবকিছু বয়কট””

তুরস্কের সাথে ব্যবসা বাণিজ্য বন্ধ করতে যাচ্ছে সৌদি আরব।

উল্লেখ্য গত তিনে অক্টোবর একটি সংবাদ সম্মেলনে আল আজলান একটি আহ্বান করেছিলেন তুর্কিশ এর সকল পণ্যগুলো বয়কট করার জন্য, এবং এই সকল বয় পত্রিকা পণ্যগুলোর মধ্যে রয়েছে তুর্কিশ থেকে আমদানিকৃত পণ্য ট্যুরিজম এবং ইনভেস্টমেন্ট সহ আরো অনেক কিছু পণ্য সামগ্রী এবং সে সময় তিনি আরো বলেন প্রত্যেক সৌদি আরবের নাগরিকগণ এর দায়িত্ব পালন করা এবং সকলের দায়িত্ব।

সে সময় তিনি আরো বলেন যে বর্তমানে যে সকল তুর্কি নাগরিকগণ সৌদি আরবের ব্যবসা-বাণিজ্য পরতেছেন তাদের সাথে যাতে করে সৌদি আরবের কোন নাগরিক লেনদেনে না জডান সে ব্যাপারেও তিনি সে সময় সবাইকে সতর্ক করে বলেছেন, তুর্কি থেকে সৌদি আরবে আসা যেকোনো পণ্য সামগ্রী তুর্কি থেকে সৌদি আরবে আমদানিকৃত পণ্য / তুর্কিতে ট্যুরিস্ট হিসেবে যাওয়া সহ সকল কিছু বন্ধ করার জন্য সৌদি আরবের নাগরিক দের কে বলেছেন।

 

আরো দেখুন 

আবারও বাংলাদেশি কৃষি-শ্রমিক ইতালি যেতে পারবেন



সে সময়ে সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকরা তাকে প্রশ্ন করেছিলেন যে তুরস্কের সাথে সৌদি আরবে বন্ধুত্বপূর্ণ সম্পর্ক নষ্ট হওয়ার কারণ কি সেসময় তিনি বলেন পুলিশকে অস্থিশীলতা আগের থেকে এখন দিন দিন বৃদ্ধি পাচ্ছে এবং বর্তমান সময়ে চলা সৌদি আরবে সরকারসহ সৌদি আরবের নাগরিক দেরকে দেশটির প্রেসিডেন্ট অপমান করেছে, যার জন্য সৌদি আরব থেকে এ পদক্ষেপ গুলো তুর্কিদের জন্য নেওয়া হচ্ছে।


উল্লেখ্য,, তুর্কিদের মুদ্রা বা লিরা এর মূল্য বর্তমান সময়ে খুবই কমে গিয়েছে যা  বিগত 2018 সালে থেকে শুরু হয়ে তুর্কিদের মুদ্রার মূল্য এখন পর্যন্ত সময়ে অনেকটাই নেমে গিয়েছে।

এছাড়াও তুর্কিদের বয়কট করার যে কারণটি উঠে এসেছে সেটা হলো কিছুদিন ধরে মধ্যপ্রাচ্যের দেশগুলো নিয়ে ইউরোপের অনেক দেশ গুলোর সাথে একটু সমস্যা সৃষ্টি হয়েছে কয়েক দেশ কে নিয়ে এবং সে সময়ে তুর্কি প্রেসিডেন্ট এরদোগান সবাইকে ওইকো থাকার ডাক দিয়েছিলেন এবং সেখানে সৌদি আরব কে প্রথম পর্যায়ে বলা হয়েছে একসাথে থেকে যেকোন মুহূর্তে যে কোন দেশের সাথে সামনা -সামনি হওয়ার জন্য,।

 

 তবে সে সময় সৌদি আরব এটিকে প্রাধান্য দেই নাই এবং তারা বিরুদ্ধ  থাকা ওই দেশগুলো বিরুদ্ধে কথা বলেন নি যার কারণে তুরস্কের প্রেসিডেন্ট এরদোগান সে সময়ে সৌদি আরব সরকারকে নিয়ে কূটনৈতিক কথা বলেছিলেন এবং তার পেক্ষাপটে বর্তমানে তুরস্কের সাথে এই বাণিজ্য সম্পর্ক বয়কট করতে যাচ্ছে সৌদি আরব, তবে সেটা কি এখনো সৌদি নাগরিকগণ বয়কট করবেন সে ব্যাপারে এখনো কোনো সত্যতা পাওয়া যাচ্ছে না তবে কিছুদিন গেলেই আসলে বুঝা যাবে তুর্কিদের পণ্য সৌদি নাগরিকগণ বয়কট করতেছে কিনা।

নিউজটি যে সকল প্রবাসী ভাইরা দেখেছেন আপনাদেরকে বলবো ফেসবুকে শেয়ার করে আমাদের নিউজগুলো অন্যদেরকেও দেখার সুযোগ করে দিন আর আমরা সব সময় প্রবাসীদের কথা বলে থাকি আমাদের নিউজে প্রবাসীদের যেকোনো নিউজ পেতে আমাদের সাইট সব সময় বিজি করুন আমরা সবসময় প্রবাসীদের কে নিয়ে নিয়েছে থাকে ধন্যবাদ সবাইকে ভাল থাকুন সুস্থ থাকুন।

নিউজ প্রবাস বাংলা

প্রবাসীদের সকল নিউজ সবার আগে পেতে যোগদিন ফেসবুকে www.facebook.com/probasnews.co

Related Articles

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

Back to top button